Bangla Runner

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১ | বাংলা

শিরোনাম

মানুষের হাড়, খুলি, কঙ্কালে তৈরি হয়েছে যে গীর্জা কান্নার গল্প রেখে গেলেন হাসির বিজ্ঞাপনের মাসুদ আল মাহদী অপু মানুষ থেকে পাথর হয়ে যাচ্ছে এক শিশু নিয়মিত সাহিত্যবিষয়ক লেখা প্রকাশ করছে দূর্বাঘাস ত্বকী: একটি বিচারহীনতার প্রতীক পার্কের দাম একটি আস্ত শহরের চেয়েও বেশি! বঙ্গবন্ধুর মননে পিছিয়ে পড়া মানুষ নীতিতে আপোষহীন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শতবর্ষে ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে ঢাবি আলাদিনের প্রদীপে ভয়ঙ্কর ফাঁদ
Home / আন্তর্জাতিক

বিশ্ববিচিত্রা

মানুষ থেকে পাথর হয়ে যাচ্ছে এক শিশু

বাংলা রানার ডেস্ক
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ Print


29K

আজ বিশ্ব বিচিত্রার শুরুতেই জানাব ‘মানুষ থেকে পাথরে পরিণত’ হওয়ার খবর! 

কী বিশ্বাস করতে পারছেন না? সম্প্রতি বিরল জিনগত সমস্যার কারণে পাঁচ মাসের শিশু লেক্সি রবিনসন ‘পাথর হয়ে যাচ্ছে’ বলে জানিয়েছেন তার বাবা-মা। চিকিৎসকরা বলেছেন, প্রতি ২০ লাখ মানুষের মধ্যে একজন এ সমস্যায় আক্রান্ত হন। এখনো পর্যন্ত বিরল এ রোগের কোনও চিকিৎসা নেই। ফাইব্রডিসপ্লাজিয়া ওসিফিক্যান্স প্রগ্রোসিভা (ঋঙচ) নামের এ রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের শরীরে মাংসপেশী এবং কনেক্টিভ টিস্যুর টেন্ডন এবং লিগামেন্টগুলো হাড়ে পরিণত হয়। এ রোগে আক্রান্ত হলে কঙ্কালের বাইরেও হাড়ের গঠন হতে পারে, ফলে চলাচল প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ে। এজন্য এ রোগকে প্রায়ই ‘পাথর হয়ে যাওয়ার’ সাথে তুলনা করা হয়।

এবার বিশ্বের গভীরতম সুইমিংপুলের কথা। 
পর্যটনের প্রাণকেন্দ্র সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইতে সম্প্রতি চালু হওয়া একটি সুইমিংপুল নজর কেরেছে বিশ্ব গণমাধ্যমের। ১৯৭ ফুট ৬০ মিটার গভীর ‘ডিপ ডাইভ দুবাই’ নামের ওই সুইমিংপুলটি বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম সুইমিংপুল। পুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মোট ছয়টি অলিম্পিক সুইমিংপুলের সমান এ পুল অন্য যে কোন সাধারণ পুলের চেয়ে ১৫ মিটার বেশি গভীর। সম্প্রতি এ দাবির সত্যতা যাচাই করেছে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষ। একটি মুক্তার ঝিনুকের আকারে গড়া ‘ডিপ ডাইভ দুবাই’ পুলটি এই অঞ্চলের পানির তলায় তৈরি সবচেয়ে বড় ফিল্ম স্টুডিও বটে। এ পুলের ভেতরে দুটি ‘ড্রাই রুম’ বা পানিবিহীন ঘরও রয়েছে। সঙ্গে আছে আলো-শব্দে সাজানো ডুবন্ত শহরের দৃশ্য।

শেষ করছি টার্কির অবাক করা এক বৈশিষ্ট্য জানিয়ে! 
টার্কি মেলিয়াগ্রিডিডিই পরিবারের এক ধরণের বড় আকৃতির পাখি বিশেষ। দেখতে মুরগির বাচ্চার মত হলেও আকৃতিতে বেশ বড় হয়। পোলট্রি শিল্পে সম্ভাবনাময়ী এই টার্কির অবাক করা বৈশিষ্ট্য হচ্ছে তাদের দৃষ্টি শক্তি। এদের দৃষ্টিকে বলা হয় ‘পেরিস্কোপ ভিশন’। কারণ, এরা মাথা ঘুরিয়ে ৩৬০ ডিগ্রি কোণে চারপাশের সব দেখতে পায়।

বিশ্ববিচিত্রা আজ এ পর্যন্তই।

আরও পড়ুন আপনার মতামত লিখুন

© Copyright -Bangla Runner 2021 | All Right Reserved |

Design & Developed By Web Master Shawon