Bangla Runner

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১ | বাংলা

শিরোনাম

মানুষের হাড়, খুলি, কঙ্কালে তৈরি হয়েছে যে গীর্জা কান্নার গল্প রেখে গেলেন হাসির বিজ্ঞাপনের মাসুদ আল মাহদী অপু মানুষ থেকে পাথর হয়ে যাচ্ছে এক শিশু নিয়মিত সাহিত্যবিষয়ক লেখা প্রকাশ করছে দূর্বাঘাস ত্বকী: একটি বিচারহীনতার প্রতীক পার্কের দাম একটি আস্ত শহরের চেয়েও বেশি! বঙ্গবন্ধুর মননে পিছিয়ে পড়া মানুষ নীতিতে আপোষহীন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শতবর্ষে ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে ঢাবি আলাদিনের প্রদীপে ভয়ঙ্কর ফাঁদ
Home / মুক্তমত

কান্নার গল্প রেখে গেলেন হাসির বিজ্ঞাপনের মাসুদ আল মাহদী অপু

এম.এস.আই খান
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ Print


হাসির বিজ্ঞাপন বানানো মাসুদ আল মাহদী অপু ভাই আমাদের জন্য একটি কান্নার গল্প রেখে গেলেন। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ক্লাস অ্যাসাইনমেন্টের অংশ হিসেবে মীর আরশাদ ভাইর সাথে মিলে একটি বিজ্ঞাপন বানিয়েছিলেন। ক্যাম্পাস রাজনীতির তোষামোদি চিত্র ফুটিয়ে তুলেছিলেন এই বিজ্ঞাপনচিত্রটিতে।

অপু ভাইর নামটি শুনলে আমার চোখের সামনে ভাসে কেবল অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে তাঁর অগ্নিঝরা একটি ভাষণ! যার প্রতিটি বাক্য ছিল স্ফুলিঙ্গের শব্দে গাঁথা! ক্ষোভে কাঁপছিল মাইক্রোফোন ধরা তাঁর হাত, থুতনি, রৌদ্রের প্রখরতা যেন উগরে যাচ্ছিল তাঁর গলার টান হয়ে যাওয়া রগে। এত দ্রোহ যার কণ্ঠে সে এভাবে নিরবে চলে যাবে মানা যায় না!

অপু ভাই ছিলেন সেই চরিত্র, যেন তার কথাই লিখে গিয়েছিলেন শামসুর রাহমান- ‘বটের ছায়ায় তরুণ মেধাবী শিক্ষার্থীর / শাণিত কথার ঝলসানি-লাগা সতেজ ভাষণ।’ মানুষের জন্য মায়া ভরা একটি বুক ছিল তাঁর, আর তাইতো ক্লাসরুমের বাইরেও তিনি মানুষের কথা বলতেন, অধিকারের জন্য লড়তেন।

খোঁচা কালো দাড়ির আর দরদভরা চোখের অপু ভাই হারিয়ে গেলেন, কফি হাউজ কিংবা ক্যাম্পাস রয়ে গেল আগের মতই।

আরও পড়ুন আপনার মতামত লিখুন

© Copyright -Bangla Runner 2021 | All Right Reserved |

Design & Developed By Web Master Shawon