Bangla Runner

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০২৩ | বাংলা

শিরোনাম

শীতকালীন ত্বকের যত্নে পাঁচ পরামর্শ কম্পিউটারের কিছু শর্টকাট ভালো চাইলে সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে দৌড়াতে শুরু করুন বিশ্বের বৃহত্তম সাত স্টেডিয়াম যুদ্ধ লাগলেই কেন বাড়ে স্বর্ণের দাম? তথ্যপঞ্জী লেখার নিয়ম বিতর্কের বিষয় ব্যাংক বিতর্কে শব্দ ব্যবহারে সচেতন হতে হবে একজন ভাল লেখক হতে চাইলে এক নজরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
Home / ক্যাম্পাস

ছাত্রলীগের ছাড়ে সিনেট সদস্য হয়েছেন নুরু, দাবি গোলাম রাব্বানীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ Print


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের সদস্য হিসেবে পাঁচ ছাত্র প্রতিনিধি চূড়ান্ত করা হয়েছে। এতে ডাকসু থেকে ভিপি নুরুল হক নুর, জিএস গোলাম রাব্বানী, সদস্য তিলোত্তমা শিকদার এবং ডাকসুর বাইরে থেকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাসকে নির্বাচিত করা হয়েছে।

১৩ জুন, বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলা রানারকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন ডাকসুর জিএস ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। ডাকসুর গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, ডাকসু থেকে ৫ জন প্রতিনিধি সিনেটে প্রেরণ করার নিয়ম রয়েছে। তারা সিনেট অধিবেশনে অংশ নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিত্ব করবেন।

গোলাম রাব্বানী বাংলা রানারকে বলেন, ‍“গত পরশু আমরা পাঁচ জনের নাম চূড়ান্ত করে ডাকসুর সভাপতির (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামান) কাছে চিঠি দিয়েছি। আজ প্রাথমিকভাবে তিনি আমাদের আবেদন মঞ্জুর  à¦•à¦°à§‡à¦›à§‡à¦¨ বলে নিশ্চিত করেছেন।”

কিভাবে এই পাঁচ জনের নাম চূড়ান্ত করা হল জানতে চাইলে তিনি বলেন, “ডাকসুর সদস্যের ভোটে এই পাঁচজনকে নির্বাচিত করা হয়েছে। তবে ভোটে ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন। সাদ্দাম ডাকসুর ভিপিকে (নুরুল হক নুর) ছাড় দিয়েছেন। এটা ভিপি হিসেবে ছাত্রলীগের পক্ষ à¦¥à§‡à¦•à§‡ তাকে দেওয়া অনুকল্পা বা সম্মান বলতে পারেন।”

শিক্ষার্থীদের ভোটে ২৫ জন ছাত্র প্রতিনিধি থাকা সত্ত্বেও সিনেট প্রতিনিধি হিসেবে বাইরে থেকে দু’জনকে অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে প্রশ্ন করলে ডাকসুর এজিএস গোলাম রাব্বানী বলেন, “সিনেটে প্রতিনিধি দেওয়ার বিষয়ে ডাকসুর সদস্য হওয়া বা না হওয়া জরুরি নয়। ডাকসুর সদস্যরা যে পাঁচ জনকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য মনোনীত করবেন তারাই প্রতিনিধি হতে পারবেন।’’

অতীতে এ ধরণের উদাহরণ রয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, “১৯৭৩,১৯৭৪ সহ পূর্বে ডাকসুর বাইরে থেকে সিনেট প্রতিনিধি করার নজির রয়েছে। ছাত্রলীগের শেখ শহিদসহ চারজনকে অতীতে করা হয়েছিল।”

সিনেট সদস্য হওয়ার ক্ষেত্রে এজিএস সাদ্দাম হোসেন ভিপিকে ছাড় দিয়েছেন বলে ডাকসুর জিএস গোলাম রাব্বানী যে দাবি করেছেন তার জবাবে ডাকসুর ভিপি (সহ-সভাপতি) নুরুল হক নুর বলেন, ‘‘ছাত্রলীগের অনুকল্পা ডাকসুর ভিপি প্রত্যাশা করে না। এখানে এমন কিছু হয়নি যে আমাকে ছাত্রলীগের অনুকম্পা নিয়ে চলতে হবে।”

 à¦¸à¦¨à§à¦§à§à¦¯à¦¾à§Ÿ বাংলা রানারকে তিনি বলেন, “আমি প্রস্তাব করেছিলাম ডাকসু থেকে পাঁচ জনকে সিনেট সদস্য করার জন্যে। অনির্বাচিত কাউকে সিনেটে প্রতিনিধি করে পাঠানোকে আমি যক্তিযুক্ত মনে করিনি। ডাকসুর সভাপতি হিসেবে উপাচার্যের হাতে একক ক্ষমতা আছে। তিনি আমাকে, জিএস এবং এজিএসকে পাঁচজন প্রতিনিধি ঠিক করার জন্য বলেছিলেন।”

ভোটের মাধ্যমে সিনেট সদস্য মনোনীত করার তথ্য সঠিক নয় জানিয়ে ভিপি নুরুল হক বলেন, “সিনেট প্রতিনিধি করার বিষয়ে আমার সাথে ফোনে জিএসের কথা হয়েছিল। ডাকসু সদস্যদের নিয়ে কোন ভোট হয়নি। কোন ভোটের মাধ্যমে সিনেট প্রতিনিধি গঠন করা হয়নি। ডাকসুর জিএস ভোট হওয়ার কথা বলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন।’’

ক্যাম্পাসে দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রলীগের দখলদারিত্ব চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‍‌“উপাচার্যের কাছে তারা যে চিঠি দিয়েছে তাতে আমি স্বাক্ষর করিনি। তারপরেও প্রশাসন ছাত্রলীগের সিদ্ধান্তকেই মেনে নিল। প্রকৃতপক্ষে একটি নিয়ন্ত্রিত ডাকসু নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ছাত্রলীগের দখলদারিত্বকে বৈধতা দেয়া হয়েছে।”

আরও পড়ুন আপনার মতামত লিখুন

© Copyright -Bangla Runner 2021 | All Right Reserved |

Design & Developed By Web Master Shawon