Bangla Runner

ঢাকা , রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪ | বাংলা

শিরোনাম

অনুর্ধ্ব ত্রিশ বয়সীরা বক্তব্য দিয়ে জিতুন ৬০ হাজার টাকার পুরস্কার রম্য বিতর্ক: ‘কুরবানীতে ভাই আমি ছাড়া উপায় নাই!’ সনাতনী বিতর্কের নিয়মকানুন গ্রীষ্ম, বর্ষা না বসন্ত কোন ঋতু সেরা?  বিভিন্ন পত্রিকায় লেখা পাঠানোর ই-মেইল বিশ্বের সবচেয়ে দামি ৫ মসলা Important Quotations from Different Disciplines স্যার এ এফ রহমান: এক মহান শিক্ষকের গল্প ছয় সন্তানকে উচ্চ শিক্ষত করে সফল জননী নাজমা খানম ‘সুলতানার স্বপ্ন’ সাহিত্যকর্মটি কি নারীবাদী রচনা?
Home / ক্যাম্পাস

বিতর্ক করে ল্যাপটপ, মোবাইল ও ট্যাব জিতলেন তিন শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক
শনিবার, ২১ আগস্ট, ২০২১ Print

মোবাইল, ল্যাপটপ ও ট্যাব পুরুস্কার হাতে [বাম থেকে] কাসফিয়া কাউছার চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম খান ও মাহফুজা মাহবুব


নদী বিষয়ক বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মোঃ সাইফুল ইসলাম খান, রানার আপ হয়েছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের মাহফুজা মাহবুব। ‘বোধ মননে নদীকে জানি’ স্লোগানকে সামনে রেখে দেশের নদীপ্রেমী মানুষদের নিয়ে বাংলাদেশ রিভার ফাউন্ডেশন, প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশন এবং রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টারের সম্মিলিত আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় ব্যতিক্রমধর্মী নদী বিষয়ক বক্তৃতা প্রতিযোগিতা। গত ১৪ মার্চ আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবসে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সম্মেলন কক্ষে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

তিন ধাপের বাছাই শেষে শীর্ষ ১০ ঘোষণা করা হয়। ফলাফলে দেখা যায়, প্রতিযোগিতায় শীর্ষ দশ জনের মধ্যে প্রথম দুজনই ঢাকা ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটির বিতার্কিক (ডিইউডিএস)। চূড়ান্ত পর্বে ৬০ নম্বরের মধ্যে ৫৪.৮৮ নাম্বার পেয়ে প্রথম হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মোঃ সাইফুল ইসলাম খান, ৫৩.০৮ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় হন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের মাহফুজা মাহবুব, ৫২.১২ নম্বর পেয়ে তৃতীয় ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের কাসফিয়া কাউছার চৌধুরী, ৫১.৯৩ পেয়ে চতুর্থ মজিদ জরিনা ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজের হৃদিতা রহমান এবং ৪৯.৩৩ পেয়ে পঞ্চম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইদ্রিস খান মুরাদ। এছাড়াও ৪৯.২৯ পেয়ে ৬ষ্ঠ স্থান অর্জন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মামুনুজ্জামান স্নিগ্ধ, ৪৭.২০ নম্বর পেয়ে সপ্তমে আছেন গাজীপুর সরকারি মহিলা কলেজের মারুফা আহমেদ দোলা, ৪৬.২২ পেয়ে ৮ম হয়েছেন তেজগাঁও মহিলা কলেজের প্রমা নিশি, ৪৬.১৮ নম্বর পেয়ে ৯ম হয়েছেন ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজের আদিবা ইবনাত রোজা এবং ১০ম স্থান অর্জনকারী কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজের ফাতেমা আক্তার পেয়েছেন ৪৫.৭৫ নম্বর।

প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়া সাইফুল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের এফ রহমান হল ডিবেটিং ক্লাবেরও (এফআরডিসি) সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। নদী বিষয়ক অনলাইন বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়নসহ কবি জসীমউদদীন হল ডিবেটিং ক্লাব আয়োজিত ১০ম জেলহত্যা দিবস আন্তঃক্লাব বারোয়ারী বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন, কুমিল্লা ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটি আয়োজিত বিজয় বিতর্ক উৎসব-২০২০ এ রানার আপ, ডিবেটিং সোসাইটি অব এইচএসটিইউ (হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়) আয়োজিত জাতীয় বারোয়ারী বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০২০ এ রানার আপ হয়েছেন।

এবং ঢাকা ইউনিভার্সিটি ইয়ুথ এগেইনস্ট হাঙ্গার(ডুয়াহ) আয়োজিত ‌প্রবন্ধ লেখা প্রতিযোগিতা-২০২০ এ প্রথম স্থান, টিআইবি (ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ)- ইয়েস গ্রুপ (ইয়ুথ এনগেজমেন্ট এন্ড সাপোর্ট), উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ‘কন্টেন্ট রাইটিং’ প্রতিযোগিতা ২০২১ এ প্রথম স্থান অর্জন করেন। এ ছাড়াও ২০১৮ সালে প্রবন্ধ প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘তাজউদ্দীন আহমদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ফান্ড পুরস্কার’, একই বছর সন্ত্রাস নিমূল ত্বকী মঞ্চ আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়ে ত্বকী পদক লাভ, পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), তমদ্দুন মজলিস, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়সহ স্কুল, কলেজ জীবনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের আয়োজনে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে পুরস্কৃত হয়েছেন।

অন্যদিকে রানার আপ হওয়া বিতার্কিক মাহফুজা মাহবুব একই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী। তিনি সুফিয়া কামাল ডিবেটিং ক্লাবের কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু বারোয়ারি ও সংসদীয় বিতর্কে অংশ নিয়ে প্রশংসা কুঁড়িয়েছে মাহফুজা। বাংলাদেশ ডিবেট ফেডারেশন (বিডিএফ) আয়োজিত জাগরণে হোক মুক্তি শীর্ষক বারোয়ারি বিতর্ক প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন, ডিইউডিএস আয়োজিত বিজয় দিবস জাতীয় বারোয়ারী বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০২০ এ চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তিনি।

এ ছাড়াও বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ ২০১৬ তে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন (ভাষা ও সাহিত্য), জাতীয় বিজ্ঞান সপ্তাহ উপলক্ষ্যে আয়োজিত উপস্থিত বক্তৃতা ২০১৬ এ চ্যাম্পিয়ন, আর্কিওলজি ডিবেটিং ক্লাব (জাহাঙ্গীর বিশ্ববিদ্যালয়) আয়োজিত এডিসি ওপেন ২০২১ এ বাংলা পাবলিক স্পিকিং ও বারোয়ারি বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন এবং সমাজকল্যাণ ডিবেটিং ক্লাব (ঢাবি) আয়োজিত ‘জাতীয় বারোয়ারি, পাবলিক স্পিকিং, উপস্থিত বক্তৃতা’ প্রতিযোগিতায় উপস্থিত বক্তৃতায় ২য় রানার আপ হয়েছেন।

বাংলাদেশ রিভার ফাউন্ডেশন, প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশন এবং রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টারের সম্মিলিত আয়োজনে প্রতিযোগীরা বক্তৃতা করেন নদীকেন্দ্রিক নানা বিষয়সহ এর দখল-দূষণ- সংকট উত্তরণ ও সম্ভাবনা নিয়ে। মন খুলে বলেন ‘ইট-কাঠের তথাকথিত উন্নয়নযজ্ঞের মধ্যেও কিভাবে আমাদের নদীগুলো ফিরে পেতে পারে তার আপন ধারা’ সে বিষয়ে। এই আয়োজনের সাপোর্টেড পার্টনার বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দল ও পরিবেশ-নদী রক্ষা উন্নয়ন পরিষদ।

এতে প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুকিত মজুমদার বাবুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য কামরুন নাহার আহমেদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মনজুরুল কিবরীয়া, অধ্যাপক অসীম বিভাকর, বাংলাদেশ রিভার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মনির হোসেন, রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এজাজ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে অভিজ্ঞ মেজর (অব.) ইমতিয়াজ ইসলাম, সংস্কৃতিজন লিয়াকত চৌধুরী, বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দলের সেক্রেটারি জেনারেল প্রকৌশলী মো. হাবিবুর রহমান ও পরিবেশ-নদী উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এইচ এম সুমন।

জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য (অতিরিক্ত সচিব) কামরুন নাহার আহমেদ বলেন, এ দিবসকে উপলক্ষ্য করে নদী বিষয়ক বক্তৃতা প্রতিযোগিতা আয়োজন নদী বাঁচানোর দায়বদ্ধতাকেই মনে করিয়ে দেয়। বর্তমানে নদ-নদীগুলো সংকটাপন্ন অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য বহুমাত্রিক উদ্যোগ প্রয়োজন। এখানে থাকবে সরকারি উদ্যোগ, গবেষণা ও সচেতনতা তৈরি। আর সচেতনতা তৈরির ক্ষেত্রে আজকের যে আয়োজন তা খুবই অর্থবহ। আমি মনে করি এর মধ্য দিয়ে জনসম্পৃক্ততা বাড়বে বিশেষ করে তরুণদের মধ্যে নদী ভাবনা ও নদীচিন্তা বাড়বে। এ ধরনের আয়োজন যত বেশি বাড়বে নদীর কথা তত জনমানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়বে।

আরও পড়ুন আপনার মতামত লিখুন

© Copyright -Bangla Runner 2024 | All Right Reserved |

Design & Developed By Web Master Shawon