Bangla Runner

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪ | বাংলা

শিরোনাম

রম্য বিতর্ক: ‘কুরবানীতে ভাই আমি ছাড়া উপায় নাই!’ সনাতনী বিতর্কের নিয়মকানুন গ্রীষ্ম, বর্ষা না বসন্ত কোন ঋতু সেরা?  বিভিন্ন পত্রিকায় লেখা পাঠানোর ই-মেইল বিশ্বের সবচেয়ে দামি ৫ মসলা Important Quotations from Different Disciplines স্যার এ এফ রহমান: এক মহান শিক্ষকের গল্প ছয় সন্তানকে উচ্চ শিক্ষত করে সফল জননী নাজমা খানম ‘সুলতানার স্বপ্ন’ সাহিত্যকর্মটি কি নারীবাদী রচনা? কম্পিউটারের কিছু শর্টকাট
Home / ক্যাম্পাস

ঢাবির চিকিৎসা কেন্দ্রে শিক্ষকের স্ত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব চিকিৎসকের

ঢাবি প্রতিনিধি
রবিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২২ Print


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের এক শিক্ষকের স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী নারী মেডিকেল সেন্টারের চিকিৎসক মো. আব্দুল আজিজ ভূঞার চিকিৎসা নিতে গেলে তিনি কুপ্রস্তাব দেন। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ শিক্ষক অভিযুক্ত চিকিৎসকের রুমে গিয়ে তাকে মারধরের চেষ্টা করেন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই চিকিৎসক।

সূত্র জানায়, অসুস্থতা নিয়ে ঢাবির শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. মোহাম্মদ মোর্তজা মেডিকেল সেন্টারে যান ভুক্তভোগী ওই নারী। এ সময় চিকিৎসক আজিজ ভূঞা বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চান। এক পর্যায়ে তাকে কুপ্রস্তাব দেন ওই চিকিৎসক।

পরে ওই নারী বিষয়টি স্বামীকে জানান। এতে তিনি (শিক্ষক) তার বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে নিয়ে মেডিকেল সেন্টারে যান। সেখানে অভিযুক্ত চিকিৎসককে মারধরের চেষ্টা করেন। এ ঘটনার পর থেকে ছুটি না নিয়েই হাসপাতালে আসছেন না অভিযুক্ত ওই চিকিৎসক।

এ বিষয়ে ওই শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে তার সঙ্গে মেডিকেল সেন্টারে যাওয়া এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমি ঘটনা স্যারের কাছ থেকে শুনেছি। স্যারের স্ত্রী ওই চিকিৎসকের কাছে গেলে তিনি অনেক ব্যক্তিগত ও আপত্তিকর প্রশ্ন করতে থাকেন। একপর্যায়ে তিনি অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছেন।’

চিকিৎসক মো. আব্দুল আজিজ ভূঞা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘বিষয়টি একটি ভুল বোঝাবুঝি। এ বয়সে এগুলো আমার মুখ দিয়ে আসবে কেন! তিনি বারবার বলছিলেন, তার কিছু ব্যক্তিগত বিষয় ছিল। পরে আমি বলেছি, ব্যক্তিগত বিষয় চিকিৎসকদের কাছে খুলে বলতে হয়। এ কথা বলাই আমার ভুল ছিল।’

এ বিষয়ে সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডা. হাফেজা জামান বলেন, ‘আমি সিনিয়র এক চিকিৎসকের মাধ্যমে বিষয়টি জেনেছি। আমার কাছে কোনো পক্ষই কোনো অভিযোগ দেয়নি। উনি (ডা. আজিজ) ছুটিতে আছেন। কিন্তু আমার কাছে ছুটির জন্য কোনো দরখাস্ত করেননি।’

আরও পড়ুন আপনার মতামত লিখুন

© Copyright -Bangla Runner 2024 | All Right Reserved |

Design & Developed By Web Master Shawon